ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে চীনা প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

চীনের বেইজিং ল্যাংগুয়েজ এন্ড কালচার ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. ঝাং ওয়াংঝি-এর নেতৃত্বে ৪-সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল আজ (২০ জুন ২০১৬) সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেছে। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ফাং মিং, মিজ ইয়াং ফান এবং মিজ ঝাং জেলিন। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক মো: আফজাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

 

সাক্ষাৎকালে তাঁরা পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে বিশেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং চীনের বেইজিং ল্যাংগুয়েজ এন্ড কালচার ইউনিভার্সিটির মধ্যে ভাষা ও সংস্কৃতি সংক্রান্ত যৌথ শিক্ষা এবং গবেষণা কর্মকা- পরিচালনার ব্যাপারে একমত পোষণ করেন। সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শীঘ্রই বেইজিং ল্যাংগুয়েজ এন্ড কালচার ইউনিভার্সিটির সার্বিক সাহায্য-সহযোগিতায় চীনের ভাষা ও সংস্কৃতি বিষয়ে ৪বছর মেয়াদী অনার্স কোর্স চালু করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এছাড়া, তাঁরা উভয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গবেষক বিনিময়ের ব্যাপারে মত বিনিময় করেন। চীনের প্রতিনিধিদলের সদস্যরা তাঁদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সফর এবং তাদের জন্য স্বল্প-মেয়াদী কোর্স চালুর ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

 

Post MIddle

উপাচার্য আরেফিন সিদ্দিক চীনা প্রতিনিধিদলকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে রয়েছে দীর্ঘকালের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। উভয় দেশের ভাষা ও সংস্কৃতির সম্পর্কও সেই প্রাচীনকাল থেকে। উভয় দেশের সুদীর্ঘকালের এই সম্পর্ককে নিয়ে শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার ব্যাপারে উপাচার্য গুরুত্বারোপ করে আরও বলেন, সম্প্রতি চীনের সহযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কনফুসিয়াস ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। উভয় দেশের সু-সম্পর্ককে জোরদার করার উদ্দেশ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীন সফরের কথা উল্লেখ করেন উপাচার্য।

 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসা এবং এর শিক্ষা ও গবেষণা সংক্রান্ত কার্যক্রমে সার্বিক সাহায্য-সহযোগিতা প্রদানে আগ্রহ প্রকাশের জন্য চীনা অতিথিদের ধন্যবাদ জানান।#

 

 

আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট