১৪৪ বছরে রাজশাহী কলেজ

Rajshahi collegeউত্তরাঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজশাহী কলেজ ১৪৩ বছর পেরিয়ে ১৪৪ বছরে পা দিয়েছে। ১৮৭৩ সালের ১ এপ্রিল ছয়জন ছাত্র নিয়ে রাজশাহী শহরে ‘রাজশাহী কলেজ’ নামে যে শিক্ষাবৃক্ষের বীজবপন করা হয়েছিল তা আজ এক ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে। প্রমত্তা পদ্মা নদীর তীরে ৩৫ একর জমির ওপর দাঁড়িয়ে জ্ঞানের আলো জ্বালিয়ে যাচ্ছে এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শিক্ষা-দীক্ষায়, শিল্প-সাহিত্যে, মননে-সৃজনে, বিজ্ঞানে-প্রযুক্তিতে এ কলেজের রয়েছে অসাধারণ সাফল্য। বর্তমানে কলেজে এইচএসসিসহ ২৪টি বিভাগে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও ডিগ্রি পাস কোর্সে পড়ানো হয়। অধ্যয়ন করছেন প্রায় ২৭ হাজার শিক্ষার্থী। আর কর্মরত আছেন ২৪৮ শিক্ষক।

 

রাজশাহীতে কলেজ প্রতিষ্ঠার লক্ষে নওগাঁর দুবলহাটির রাজা হরনাথ রায় চৌধুরী ১৮৭২ সালে জমিদারির একটি অংশ রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলকে দান করেন। তারই অর্থানুকূলে ১৮৭৩ সালের ১ এপ্রিল একজন মুসলিম ছাত্রসহ ছয়জন ছাত্র নিয়ে কলেজিয়েট স্কুলের সঙ্গে বর্তমান রাজশাহী কলেজের উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণীর সমমানের ফার্স্ট আর্টস কোর্স চালু হয়। ১৮৭৮ সালে বিএ এবং মাস্টার্স কোর্স খোলার অনুমতি দেয়া হয়।

 

পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বিখ্যাত রাজনীতিবিদ জ্যোতি বসু, উপমহাদেশের খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক ঋত্বিক ঘটক, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি স্যার যদুনাথ সরকার, বৈজ্ঞানিক প্রথায় ইতিহাস চর্চার পথিকৃৎ অন্যতম সাহিত্যিক অক্ষয় কুমার মৈত্র, সাবেক প্রধান বিচারপতি হাবিবুর রহমান, জননেতা ও শিক্ষানুরাগী মাদার বখশ, বাংলাদেশের চার জাতীয় নেতার একজন এ এইচ এম কামরুজ্জামানের মতো বরেণ্য ব্যক্তিত্ব এ কলেজের ছাত্র ছিলেন।

 

প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে কলেজের নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে বিনামূল্যে ওয়াইফাই সুবিধা। ৮৮টি শ্রেীণ কক্ষকে মাল্টিমিডিয়ায় রূপান্তর করা হয়েছে। এজন্য শিক্ষকদের দেয়া হয়েছে ৪৫০টি ল্যাপটপ। প্রত্যেক বিভাগে রয়েছে ব্রডব্র্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ।

 

কলেজকে আধুনিকীকরণ ও শিক্ষা ক্ষেত্রে আধুনিক এবং ডিজিটাল ব্যবস্থা প্রবর্তনের জন্য অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান বিভাগীয় ‘ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-২০১৬’ লাভ করেছেন। বিভাগীয় ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় রাজশাহী বিভাগে শ্রেষ্ঠ কলেজ হিসেবে বিবেচিত হয়েছে রাজশাহী কলেজ। এছাড়া উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ২০১৩ ও ২০১৪ সালে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে প্রথম স্থান অর্জন করে এবং ২০১৪ সালে সরকারি কলেজের মধ্যে শ্রেষ্ঠ স্থান লাভ করে রাজশাহী কলেজ।

 

অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান জানান, শুক্রবার হওয়ায় দিবসটি উপলক্ষে কলেজে কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়নি। তবে আজ নানা আয়োজনে রাজশাহী কলেজের জন্মদিন উৎযাপন করা হবে।#

 

আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট