কুয়েটে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস পালিত

????????????????????????????????????

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০১৫ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদ্যাপিত হয়েছে। ২৬ মার্চ সূর্যোদয়ের সাথে সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন, ভাইস-চ্যান্সেলর এর বাসভবন এবং আবাসিক হলসমুহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

 

সকাল ৮টা থেকে “দুর্বার বাংলা”র প্রান্তরে শুরু হয় গণসংগীত। সকাল ৯টায় ক্যাম্পাসস্থ মুক্তিযুদ্ধের ভাষ্কর্য “দুর্বার বাংলা” এর পাদদেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এরপর শিক্ষক সমিতি, পরিচালক (ছাত্র-কল্যাণ), অফিসার্স এসোসিয়েশন, ছাত্রলীগ, ৩য় শ্রেণী কর্মচারী সমিতি, বঙ্গবন্ধু কর্মচারী পরিষদ, ৪র্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতি, মাষ্টাররোল সমিতি, খুলনা ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি স্কুল (মাধ্যমিক ও প্রাথমিক), উম্মেষ সরঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ অন্যান্য সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

 

????????????????????????????????????

সকাল সাড়ে ৯টায় অডিটরিয়ামে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সন্তানদের অংশগ্রহণে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। সকাল সাড়ে ১০টায় খেলার মাঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও শিক্ষকের মধ্যে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।

 

এছাড়া, দিবসের অন্যান্য কর্মসূচীর মধ্যে বিকাল ৫টায় অডিটরিয়ামে মুক্তিযুদ্ধের উপর চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, আসর বাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দোয়া মাহ্ফিল ও সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় স্বাধীনতা দিবসের উপর আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য, ২৫ মার্চ সন্ধ্যায় ’৭১ এর গণহত্যার কালরাতের স্মরণে ক্যাম্পাসে আলোর মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোর মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর।##

 

লেখাপড়া২৪.কম/এমএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট