খুবিতে বন দিবস উপলক্ষে সেমিনার

Khulna University photo২১ মার্চ সকাল ১০টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক বন দিবস-২০১৬ উপলক্ষে এক নম্বর একাডেমিক ভবনের ইউআরপি ডিসিপ্লিনের লেকচার থিয়েটারে এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। বন এবং পানির মধ্যেকার সম্পর্ক শীর্ষক এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার খান আতিয়ার রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে জীববিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ নাজমুল আহসান এবং সম্মানিত অতিথি খুলনা সার্কেলের বন সংরক্ষক মোঃ জহির উদ্দিন আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

 

সেমিনারে তিনটি গবেষণা পেপার উপস্থাপন করেন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আব্দুর রউফ, প্রফেসর ড. মোঃ নবিউল ইসলাম খান এবং প্রফেসর ড. মোঃ নাজমুস সাদাত। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এছাড়া স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (বন্যপ্রাণি বিভাগ) মোঃ জাহিদুল কবির এবং আরও বক্তব্য রাখেন ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট ইকো-সিস্টেম এন্ড লিভলাইহুড নামক বেসরকারী আন্তর্জাতিক সংস্থার আঞ্চলিক সমš^য়কারি শেখ মোঃ জিয়াউল হক।

 

সেমিনারে বক্তারা বলেন পানি ও বনের মধ্যে নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। বন না থাকলে সুপেয় পানির আরও সংকট সুষ্টি হবে। বনের কারণেই ভ‚মি ক্ষয়, ভ‚মি ধস প্রতিরোধ, পানির নানামাত্রিক ধারণ,বিশুদ্ধকরণ এবং অক্্িরজেন উৎপাদন ও কার্বন নিঃসরণরোধসহ নানমাত্রিক উপকার আমরা পাই। বন ও পরিবেশ অঙ্গাঅঙ্গি জড়িত এবং আমাদের বেঁেচ থাকতে হলে বন অবশ্যই প্রয়োজন। প্রসঙ্গক্রমে বলা হয় সুন্দরবন আমাদের গর্ব, বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। তাই সুন্দরবন থেকে সম্পদ আহরণের আগে আমাদেরকে সেই সম্পদ সম্পর্কে অবশ্যই সঠিক তথ্য উপাত্ত থাকতে হবে যাতে বোঝাযায় আমরা অতিমাত্রায় সম্পদ আহরণ করছি কি না এবং তাতে সুন্দরবনের কতটুকু ক্ষতি হতে পারে। বক্তারা আরও বলেন বৈশ্বিক উষতায় জলবায়ু পরিবর্তনে ঝুঁকিতে রয়েছে সুন্দরবন।

 

এখন কেবল বন বিভাগই নয় সুন্দরবন রক্ষায় এখন সরকারি বেসরকারি ১৭টি প্রতিষ্ঠান কাজ করছে এবং কমিউনিটি ম্যানেজমেন্ট ব্যবস্থাপনাও গড়ে তোলা হচ্ছে। ফলে ভবিষ্যতে সুন্দরবন রক্ষায় এবং এর উন্নয়নে নানা উপায় বের হয়ে আসবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় সুন্দরবনের সবচেয়ে কাছের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান তাই এ বিশ্ববিদ্যালয়কে সুন্দরবনসহ এতদাঞ্চলের পানি,পরিবেশ, বনসহ সকল সম্পদের বিষয়ে অধিকতর গবেষণা ও দিকনির্দেশকের ভ‚মিকা পালন করতে হবে বলেও সেমিনারে উল্লেখ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী এ সেমিনারে অংশ নেন।

 

লেখাপড়া২৪.কম/খুবি/পিআর/এমএএ

পছন্দের আরো পোস্ট