ঢাবিতে আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি বৃত্তি ২০১৪ প্রদান

????????????????????????????????????

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ১জন শিক্ষার্থীকে “জননেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি স্বর্ণপদক’ এবং ৩জন কে “জননেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি বৃত্তি ২০১৪” প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও জননেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি ট্রাস্ট ফান্ডের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। এছাড়া, অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন এবং জননেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি ট্রাস্ট ফান্ডের দাতা সদস্য মিসেস ফরিদা রাজ্জাক, নাহিম রাজ্জাক এমপি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নুরুল আমিন বেপারী এবং রেজিস্ট্রার সৈয়দ রেজাউর রহমান।

 

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র আবু সুফিয়ানকে ‘আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি স্বর্ণপদক’ এবং একই বিভাগের মুক্তা জাহান, সিরাজুম মুনিরা ও মোছাঃ শাহানাজ পারভীনকে ‘আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি বৃত্তি’ প্রদান করা হয়।

 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক জননেতা আব্দুর রাজ্জাকের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, ত্যাগী ছাত্রনেতা এবং পরবর্তীতে সৎ ও দেশপ্রেমিক রাজনীতিবিদ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহধন্য এই রাজনীতিবিদ আমাদের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় সারাজীবন নেতৃত্ব প্রদান ও নিরলস কাজ করে গেছেন।

 

উপাচার্য অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক ‘আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি স্বর্ণপদক ও বৃত্তি’ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, নতুন প্রজন্মের সকলকে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য সংগ্রাম ও আত্মত্যাগের ইতিহাস, জাতীয় চার নেতার সংগ্রামী ইতিহাস সর্বোপরি জননেতা আব্দুর রাজ্জাকের রাজনৈতিক জীবন ও ইতিহাস সব সময় মনে রাখতে হবে।

 

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জননেতা আব্দুর রাজ্জাককে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে বলেন, তিনি ছিলেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার খুবই ঘনিষ্ঠ। যে ক’জন তরুণ নেতা বঙ্গবন্ধুর পাশে সব সময় ছিলেন, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন জননেতা আব্দুর রাজ্জাক। বঙ্গবন্ধুর একজন ত্যাগী সাহসী সৈনিক হিসেবে ইতিহাসে তাঁর নাম চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। সকলের কাছে রাজ্জাক ভাই ছিলেন অসাম্প্রদায়িক ও মুক্ত চিন্তার সৎ ও আদর্শবান জনপ্রিয় নেতা।

 

অনুষ্ঠানে জননেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মৃতি ট্রাস্ট ফান্ডের দাতা সদস্য মিসেস ফরিদা রাজ্জাক এই ট্রাস্ট ফান্ডের তহবিল বৃদ্ধির জন্য ৫ লক্ষ টাকার একটি চেক বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দীনের কাছে হস্তান্তর করেন।#

 

 

লেখাপড়া২৪.কম/ঢাবি/পিআর/আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট