কন্যা তুমি সাহসিনী…

COU PIC 2‘রক্ত লাগলে রক্ত নে, আমার ভাইয়ের নিরাপত্তা দে’ ‘স্টপ ভায়োলেন্স সেইভ স্টুডেন্টস’। এমন অসংখ্য শ্লোগান সম্বলিত কাগজ হাতে প্রথমবারের মতো শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে স্বতঃস্ফূর্ত অংশ গ্রহণ দেখা যায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের থেকে নিজেদের আলাদা করে না রেখে নিজের সহপাঠী ছাত্রের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ জানাতে রাজপথে নামে এসব সাহসিনীরা।

 

‘এ দিনটি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের অস্তিত্ব রক্ষার দিন, আমার বোনের উপর নির্যাতন হবে আর আমি ঘরে বসে থাকবো? এ হতে পারেনা। সন্ত্রাসীদের বিচার না হলে রাজপথ ছেড়ে আমরা কখনোই যাবনা।’ কথাগুলো বলছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবাদী ছাত্রী লীনা।লীনার মতো অর্ধশতাধিক মেয়ে এভাবেই সোমবার রাজপথে নেমে আসে।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বহনকারী বাসে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ঘর ছেড়ে মাঠে নেমে পড়ে এসব প্রতিবাদী সাহসী কন্যা।যে মেয়েটি ক্যাম্পাস থেকে মাত্র ৫মিনিটের রাস্তা হেঁটে যেতে চায়না। আজ সেই মেয়েটিই প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরের বিশ্বরোড পর্যন্ত পায়ে হেঁটে মিছিল নিয়ে যেতে কুণ্ঠিত হয়নি। কোন ক্লান্তিও ভর করেনি তাদের শরীরে। চোখে তাদের ঘৃণা, কণ্ঠে প্রতিবাদী শ্লোগান। যেন অস্তিত্ব রক্ষায় তারা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

 

ছাত্রীদের এই প্রতিবাদী রূপ দেখে কুবি আজ গর্বিত, আনন্দিত। তাই ক্যাম্পাস জুড়ে এখন শুধু একটি কথাই শোনা যাচ্ছে ‘কন্যা তুমি সাহসিনী’।

c3099439-b0ab-4243-80dc-aceede80e3e8

 

পছন্দের আরো পোস্ট