জাবির দুই শিক্ষককে চাকরি থেকে অব্যহতি

JUসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটুক্তি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম ভঙ্গ করে বাহিরে অবস্থান করায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষককে চাকুরি থেকে অব্যাহতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

 

সোমবার রাতে নিয়মিত সিন্ডিকেট সভায় ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মুফতি মাহমুদ ও প্রভাষক মো. রুহুল আমিন খন্দকারকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক।

 

জানা যায়, ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট প্রভাষক মো. রুহুল আমিন খন্দকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মৃত্যু কামনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

 

স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন, পরীক্ষা ছাড়া ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়ার ফল- সবাই মরে, শেখ হাসিনা মরে না কেন? এ খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে ২০১১ সালে ২ অক্টোবর সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মনোয়ার হোসেন তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহীতা ও হত্যার হুমকির অভিযোগে আশুলিয়া থানায় মামলা করেন।

 

পরে ২০১৫ সালের ১২ আগস্ট মো. রুহুল আমিন খন্দকারকে তিন বছরের সশ্রম কারাদ- দেয় আদালত। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে অতিরিক্ত ছয় মাসের সশ্রম কারাদ- দেয়া হয়। আদালতে শাস্তি হওয়ায় সোমবার অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় মো. রুহুল আমিন খন্দকারকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অব্যাহতি দেয়।

 

অন্যদিকে একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মুফতি মাহমুদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছুটি নিয়ে বাহিরে যায়। ছুটি শেষ হওয়ার তিন বছর পর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কয়েকবার নোটিশ দেয়া সত্ত্বেও কর্মস্থলে যোগদান না করায় তাকেও অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।##

 

লেখাপড়া২৪.কম/জাবি/পিআর/এমএইচ-৪৬০

পছন্দের আরো পোস্ট