শেকৃবিতে মেধাতালিকা থেকে ভর্তি হলেন ৪০৯ জন

 

Sauরাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষ সম্মান শ্রেণীর ভর্তি প্রক্রিয়ার দ্বিতীয় দিন আজ মঙ্গলবার মেধাতালিকা থেকে ভর্তি হয়েছেন ৩২ জন। এ নিয়ে মোট ভর্তি হয়েছেন ৪০৯ জন। ফলে অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ৯১ জনকে ভর্তি নেয়া হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিম এবং শাখা কর্মকর্তা রাজিব বসাক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেরিট লিস্ট থেকে সাধারণ ৪৬১ টি আসনের বিপরীতে ৩৮৩ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ২৫ টি আসনের বিপরীতে ২০ জন, পোষ্য কোটায় ৫ টি আসনের বিপরীতে ৩ জন, উপজাতি কোটায় ৫ টি আসনের বিপরীতে ৩ জন এবং হরিজন কোটায় ৫ টি আসনের বিপরীতে ২ জন ভর্তি হয়েছেন। সর্বোমোট ৫০০ আসনের বিপরীতে মেধাতালিকায় ভর্তির শেষ দিনে ভর্তি হয়েছেন ৪০৯ জন।

 

আসন খালি আছে সাধারণ ৭৮ টি, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৫ টি, পোষ্য কোটায় ১ টি, উপজাতি কোটায় ২ টি এবং হরিজন কোটায় ৩ টি। সর্বোমোট ৫০০ আসনের মধ্যে ফাঁকা আছে ৯১ টি আসন। যা আগামী ৩১ ডিসেম্বর অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে পূরণ করা হবে। এজন্য অপেক্ষমান তালিকা থেকে ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের আগামীকাল ৩০ ডিসেম্বর বেলা ২ ঘটিকার মধ্যে স্ব-শরীরে উপস্থিত হয়ে রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে প্রবেশপত্র জমা দিতে হবে এবং একই দিন মেধাক্রম অনুসারে ভর্তিযোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

 

ভর্তির সময় শিক্ষাগত যোগ্যতার সকল মূল গ্রেডসীট, সনদপত্র, প্রসংসাপত্র এবং ০৩ কপি সত্যারিত রঙিন ছবি নিয়ে আসতে হবে। এছাড়া কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কোটার প্রমানপত্র আনতে হবে। মুক্তিযোদ্ধার কোটার ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সনদপত্র অথবা ১৯৯৭ থেকে ২০০১ পর্যন্ত বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অধীনে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রতি স্বাক্ষরিত মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট এবং নাতি নাতনির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধার সহিত আত্বীয়তার সম্পর্ক প্রমাণের জন্য ইউনিয়ন পরিষদ/ওয়ার্ড কমিশনার এর সার্টিফিকেট, ওয়ার্ড (পোষ্য) কোটার ক্ষেত্রে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ/দপ্তর প্রধানের সুপারিশের আলোকে রেজিস্ট্রার কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যায়ন পত্র এবং উপজাতি, আদিবাসী, হরিজন ও দলিত স¤প্রদায় কোটার ক্ষেত্রে উপযুক্ত প্রমানপত্রের মূল কপি জমা দিতে হবে।

 

প্রার্থী কর্তৃক সরবরাহকৃত কোন তথ্য ভূল বা অসত্য প্রমানিত হলে প্রার্থী ভর্তির অযোগ্য বলে গন্য হবে। এমনকি ভর্তির পরেও কোন তথ্যগত ভুল বা অসত্য প্রমানিত হলে ভর্তি বাতিল বলে গন্য হবে।

 

ভর্তির সময় অনুষদ পছন্দক্রম দিতে হবে যার সাথে ভর্তি পরীক্ষার মেধাতালিকার সাথে সমন্বয় করে শিক্ষার্থিদের অনুষদ বরাদ্দ দেয়া হবে। অনুষদ বরাদ্দের ফলাফল অরিয়েন্টেশনের দিন জানা যাবে। উল্লেখ্য, এবছর অনুষদ পরিবর্তনের কোন সুযোগ থাকবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট আসনসংখ্যা ৫০০ টি। তন্মধ্যে কৃষি অনুষদে ৩৫০, এগ্রিবিজনেস ম্যানেজমেন্ট অনুষদে ৭৫ এবং এনিম্যাল সায়েন্স ও ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদে রয়েছে ৭৫ টি আসন।

 

ভর্তি ফি ১৫২৫০ টাকা এবং হল ফি আবাসিক ও অনাবাসিক ভেদে ১২৫০ থেকে ২৭৫০ টাকা জমা দিতে হচ্ছে। তবে অনুষদ বরাদ্দের পর কৃষি অনুষদ বাদে অন্য দুই অনুষদ প্রাপ্তদের বাকি টাকা জমা দিতে হবে।

 

ভর্তি বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ওয়েবসাইট- www.sau.edu.bd থেকে বিস্তারিত জানা যাবে।

 

লেখাপড়া২৪.কম/শেকৃবি/পিআর/এমএএ-০৫১৭

পছন্দের আরো পোস্ট