চবিতে দু’দফা দাবিতে ছাত্রীদের বিক্ষোভ

Pic10চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) সান্ধ্য আইন প্রত্যাহার ও প্রভোস্ট ড. জরিন আখতারের পদত্যাগ দাবিতে দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হলের ছাত্রীরা বিক্ষোভ করে।

 

মঙ্গলবার রাতে হলের সামনে এবং ক্যাম্পাসের শহীদ মিনার চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান করে ছাত্রীরা।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৮ টার দিকে খালেদা জিয়া হলের সামনে অবস্থান করে ছাত্রীরা। এক পর্যায়ে শ’খানেক ছাত্রী হল থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে চবির শহীদ মিনারে আসে। সেখানে তারা ১ ঘন্টা অবস্থান করে।

 

পরে সহকারী প্রক্টর হেলাল এবং আনোয়ার হোসেন এসে পরিস্থিতি শান্ত করে। তাদের দাবি প্রশাসন দ্রুত কার্যকর করবে এমন কথার প্রেক্ষিতে মেয়েরা রাত সাড়ে ৯ টার দিকে হলে ফিরে যায়।

 

Exif_JPEG_420
Exif_JPEG_420

জানা যায়, খালেদা জিয়া হলের ছাত্রীরা সন্ধ্যা ৭ টার পরে হলে প্রবেশ করলে হলের নির্দিষ্ট খাতায় নাম, রুম নাম্বার এবং কেন হলে প্রবেশ করতে দেরী হয়েছিল তা লিপিবদ্ধ করতে হয়। পরে ম্যাম ঐ ছাত্রীদেরকে প্রায় সময়ে নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে বকাঝকা করেন এবং আশোভন কথা বলেন বলে অভিযোগ করেছে ছাত্রীরা।

 

নাম প্রকাশ না করা শর্তে এক ছাত্রী জানান, আমাদের হলের প্রভোস্ট ম্যাম আমাদের টিউশনি বা শহর থেকে আসতে দেরী হলেও আমাদের কথা না শুনেন না ও বুঝতেও চান না। তিনি উল্টো বকাঝকা করেন।
তারা আরো জানান, ম্যাম ছাত্রীদেরকে সৌকজ করেন এবং স্বস্ব বিভাগের সভাপতি বরাবর জানিয়ে দেন।

 

এদিকে হলের কথা বিভাগের সভাপতিকে জানিয়ে দেওয়ায় আরেক ছাত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের সাথে বসে ম্যাম সমস্যা সমাধান করতে পারতেন। কিন্তু তা না করে বিভাগ বরাবর পাঠালেন কেন তিনি।

 

ক্যাম্পাসের স্থানীয় বাসীন্দারা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম। মেয়েরা রাতে হল থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের শহীদ মিনারে এই শীতের মধ্যে অবস্থান করা আগে কখনো দেখি নি আমরা।
এ ব্যাপারে হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. জরিন আখতার সাংবাদিকদের কোন প্রশ্নের জবাব দেন নি। তিনি বলেন “নো কমেন্ট, নো কমেন্ট”।

 

 

এ ব্যাপারে চবি সহকারী প্রক্টর মো. আনোয়ার হেসেন বলেন, আমরা ঘটনা শুনে শহীদ মিনারে আসি। মেয়েদের দাবি নিয়ে অতি দ্রুত আমরা বসে একটা সিদ্ধান্ত নিবো। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে আর ছাত্রীরা হলের নিজ নিজ কক্ষে চলে গেছে।

 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, চবিতে তিনটি ছাত্রী হল ও একটি ছাত্রী হোস্টেল রয়েছে। সন্ধ্যা সাতটার পরে কোন জরুরী কাজ ছাড়া মেয়েদেরকে হলে প্রবেশ ও বের হতে হলে অবশ্যই তাদেরকে নির্দিষ্ট খাতায় তা লিপিব্ধ করতে হয়।#

 

 

লেখাপড়া২৪.কম/চবি/কাইয়ুম/আরএইচ-৫০৯৮

পছন্দের আরো পোস্ট