রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস পালিত

Bijoy-1নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বুধবার বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯ টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবীর নেতৃত্বে ক্যাম্পাস থেকে একটি বিজয় শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক ও স্থানীয় মডার্ণ মোড় প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়। এতে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ অংশ নেন। পরে শহীদ মিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করেন। এরপর পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন অনুষদ, বিভাগ, দপ্তর ও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করা হয়।

 

এর আগে মঙ্গলবার ১২.০১ মিনিটে বীর শহীদদের উদ্দেশ্যে শহীদ মিনারে এবং সকালে স্থানীয় মডার্ণ মোড়ে বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল সংবলিত অর্জনে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবী।

 

সকাল ১০টায় ক্যাফেটেরিয়া ভবনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ড. এ কে এম নূর-উন-নবী এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন। মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করে উপাচার্য বলেন ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণই ছিল মুক্তিযুদ্ধের নির্দেশ এবং সেই নির্দেশনা থেকেই আমরা জীবন বাজি রেখে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলাম। সেই দিনই দেশের জন্য আমি আমার জীবন উৎসর্গ করেছি। তাই আমার আর কোন ব্যক্তিগত চাওয়া পাওয়া নেই। যতদিন বাঁচবো দেশের জন্যই কাজ করে যাবো।’

 

????????????????????????????????????

তরুন প্রজন্মের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন ‘তোমাদেরকেই দেশ গড়ার দায়িত্ব নিতে হবে। তোমাদের মাঝে সেই উদ্দীপনা থাকতে হবে। মনে রাখেবে, দেশ ও মাটিকে ভালোবাসলে উদ্দীপনা কখনো শেষ হয় না।’ সভায় ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ: আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রসারিত হাত’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলা বিভাগের প্রফেসর ড. নাজমুল হক। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ মতিউর রহমান ও প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ তাজুল ইসলাম।#

 

 

লেখাপড়া২৪.কম/বেরোবি/পিআর/আরএইচ-৪৯৮৪

পছন্দের আরো পোস্ট