পাবনা বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

IMG_0552-2১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস। বাংলাদেশের সবচেয়ে আনন্দের, বড় প্রাপ্তির দিন। বিজয় দিবস পালন উপলক্ষে বুধবার পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ছিল আনন্দ উৎসবমুখর। সকালে প্রশাসন ভবন থেকে ভাইস-চ্যান্সেলরের নেতৃত্বে বিজয় র‌্যালি বের হয়। র‌্যালি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে স্বাধীনতা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আল-নকীব চৌধুরী মহোদয়। এরপর ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শিক্ষক সমিতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ- শিক্ষক ইউনিট, বঙ্গবন্ধু পরিষদ- কর্মকর্তা ইউনিট, কর্মচারীবৃন্দ ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, ছাত্রমৈত্রীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

 

এরপর এক আলোচনা সভায় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আল-নকীব চৌধুরী বলেন, বাঙালি জাতির জীবনে ১৬ ডিসেম্বর সবচেয়ে আনন্দের দিন। অনন্য গৌরবের দিন। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে বাঙালি জাতি নয় মাস মরনপণ যুদ্ধ করে ১৯৭১ সালের এইদিনে চুড়ান্ত বিজয় অর্জন করেন। জাতি পায় স্বাধীন রাষ্ট্র, নিজস্ব পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীত। বাঙালি জাতির এই বিরত্ব ও দেশাত্ববোধ বিশ্বে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করে। বিজয়ের ৪৪ বছরে বাংলাদেশ আজ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা হতে চলেছে তারই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে। স্বাধীনতার স্বাদ পুর্নাঙ্গ পরিপূর্নতা পাবে আজকের শিক্ষার্থী-তরুন সমাজের মাধ্যমে। আদর্শ শিক্ষা গ্রহন করে সুনাগরিক হতে হবে শিক্ষার্থীদের। আদর্শ রাষ্ট্র গঠনে শিক্ষার্থীদেরকে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার সৈনিক হওয়ার আহবান জানান ভিসি মহোদয়।

 

জনসংযোগ দপ্তরের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন চৌধুরীর সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রক্টরর আওয়াল কবির জয়, ছাত্র উপদেষ্টা ড. মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ, প্রকৌশল অনুষদের ডিন সাইফুল ইসলাম, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. আব্দুল আলীম, বিজনেস ষ্টাডিজ অনুষদের ডিন মোঃ কামরুজ্জামান, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন খায়রুল আলম, বঙ্গবন্ধু হলের প্রভোষ্ট রাশেদ কবির, শেখ হাসিনা ছাত্রী হলের প্রভোষ্ট ড. মীর খালেদ ইকবাল চৌধুরী, অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার বিজন কুমার ব্র‏হ্ম, অতিরিক্ত পরিচালক গোলজার হোসেন,অতিরিক্ত পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সোহরাব হোসেনসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীরা। শেষে ১৯৭১ সালের শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়।

 

 

এদিকে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে দুপুরে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর মহোদয়। #

 

লেখাপড়া২৪.কম/পাবিপ্রবি/পিআর/আরএইচ-৪৯৮৪

পছন্দের আরো পোস্ট