‘কারিগরি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই’

শিক্ষামন্ত্রীআধুনিক বিশ্বের চাকরির নতুন বাজারের উপযোগী করে গড়ে তুলতে দক্ষ জনবল দরকার। আর এজন্য প্রয়োজন কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়া।

 

সোমববার (৭ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর একটি হোটেলে কারিগরি শিক্ষা-সংক্রান্ত এক অনুষ্ঠানে একথা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

 

তিনি বলেন, আমরা শিক্ষার ওপর জোর দিচ্ছি, কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষার ওপর জোরের ওপর জোর দিচ্ছি। আমাদের তরুণ প্রজন্মকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে কারিগরি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। এই দক্ষ প্রজন্ম চাকরির বাজারে নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করে নেবে।

 

২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশের তালিকায় নাম লেখাবে আশা করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে তরুণ প্রজন্ম এই দেশকে উন্নত দেশে রূপ দেবে।

 

কারিগরি শিক্ষা সহযোগিতা করার জন্য দাতা সংস্থাদের ধন্যবাদ জানিয়ে ভবিষতেও এই খাতে সহযোগিতার প্রত্যাশা করেন নাহিদ।

 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব এ এস মাহমুদ, ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত পিয়ারে মায়াদোন, আইএলও’র বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর শ্রীনিবাশ বি রেড্ডি, শ্রম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খোরশেদ আলম বক্তব্য রাখেন।
পিয়ারে মায়াদোন বলেন, বাংলাদেশে তৈরি পোশাক শিল্পের জন্য কারিগরি শিক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এদশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে যা ব্যাপক ভূমিকা রাখছে।

 

‘টেকনিক্যাল অ্যান্ড ভোকেশনাল এডুকেশন অ্যান্ড ট্রেনিং (টিভিইটি) রিফর্ম ইন বাংলাদেশ প্রজেক্ট’র সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এবং টিভিইটি প্রকল্প পরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস।

 

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দাতা সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। #

 

 

লেখাপড়া২৪.কম/আরএইচ-৪৮৬৩

পছন্দের আরো পোস্ট