ঝিনাইদহে ২ হাজার ৫শ’ শিক্ষকের দক্ষতা বৃদ্ধির প্রশিক্ষণ সম্পন্ন

জেলার ৬ উপজেলায় শিক্ষকদের দক্ষতা বৃদ্ধির উপর প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। দুই হাজার পাঁচশ’ শিক্ষক এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন। দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ক্লাসে কি পড়াবেন, কি ভাবে পড়াবেন- সে বিষয়ের উপর নিবিড় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।
ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিসার ইব্রাহীম খলিলুল্লাহ জানান, এডিবি’র অর্থায়নে সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ডেভঃ প্রজেক্টের আওয়তায় শিক্ষকদের এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। পাঁচটি ব্যাচে তিনদিন করে মোট ২ হাজার ৫শ’ শিক্ষকের ট্রেনিং করানো হয়।
তিনি আরো জানান, সরকার বিশেষ করে মহাপরিচালকের নির্দেশনা মোতাবেক প্রকল্পের আওতায় সফল ভাবে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ শেষ করতে পেরে আমরা গর্বিত। এ ধরনের ট্রেনিং বেশি বেশি করানো হলে শিক্ষকদের শিক্ষা দানের কলাকৌশল বৃদ্ধি পেতো।
তিনি জানান, ঝিনাইদহের ২৫শ’ শিক্ষক কারিকুলামের উপর দক্ষ হয়ে উঠেছে। এই প্রশিক্ষণে প্রায় ৬০ লাখের বেশি টাকা ব্যয় হয়েছে।
প্রশিক্ষক আবু ছালেহ মোঃ মুছা জানান, প্রশিক্ষণ পেয়ে শিক্ষকরা পুলকিত এবং আনন্দিত। দক্ষতা বৃদ্ধিতে তারা বেশি বেশি প্রশিক্ষণ চায়। প্রশিক্ষক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, শিক্ষকরা আইটি বিষয়ে বেশ আগ্রহী। তিনি শিক্ষকদের আইটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিতে পেরে গর্বিত বলে জানান। ঝিনাইদহ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মহিউদ্দীন জানান, জেলার শিক্ষকদের দক্ষতা বৃদ্ধির প্রশিক্ষণ নিঃসন্দেহে সরকারের একটি ভাল উদ্যোগ। তিনি ঝিনাইদহ জেলায় আরো ট্রেনিং দিয়ে বাকী শিক্ষকদের মেধা বিকাশের সুযোগ করে দেওয়ার দাবি জানান। শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের একটি সুত্র জানায় প্রতি বছর এডিবির অর্থায়নে এ ধরণের প্রশিক্ষণ অব্যাহত থাকবে। চলতি অর্থ বছরেও ঝিনাইদহে জেলায় প্রশিক্ষণের অর্থ বরাদ্দের তালিকায় রয়েছে।#

 

স:আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট