কুয়েটে স্নাতক পর্যায়ে চালু হচ্ছে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) ২০১৪-২০১৫ইং শিক্ষাবর্ষ থেকে তড়িৎ ও ইলেক্ট্রনিক কৌশল অনুষদের অধীনে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক পর্যায়ে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হবে। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) স্মারক নংঃ ইউজিসি/প্রশাঃ/পাবঃবিশ্বঃ/৪৫০(পার্ট-৩)/০৩/, তারিখঃ ১৭ জুলাই, ২০১৪ এর অনুমোদনের

প্রেক্ষিতে কুয়েটে চলতি ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষ থেকে বি.এস-সি. ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৩০ জন নতুন শিক্ষার্থী ১ম বর্ষে ভর্তির সুযোগ পাবে।

বর্তমান বিশ্বের চাহিদার প্রেক্ষিতে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক পর্যায়ে ডিগ্রী প্রদানের জন্য ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করার বিষয়টি গত ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৩ইং তারিখে অনুষ্ঠিত কুয়েটের একাডেমিক কাউন্সিলের ৪৩তম সভায় উত্থাপন করা হলে একাডেমিক কাউন্সিল প্রাথমিকভাবে ৩০ জন ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে স্নাতক পর্যায়ে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করার অনুমোদন প্রদান করে।
kuet new monogram
উল্লেখ্য, কুয়েটে ২০০৭ সালে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের যাত্রা শুরু করে। ইতিমধ্যে এই বিভাগ থেকে ছাত্র-ছাত্রী বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং এম.এস.সি অর্জন করেছে।

চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক পর্যায়ে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর ইউজিসি ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞপন করেন।

তিনি বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তোরোত্তর শিক্ষার্থীর আসন সংখ্যা বৃদ্ধি, নতুন নতুন বিভাগ চালু হওয়া প্রমাণ করে বিশ্ববিদ্যালয়টি দেশের অন্যতম সেরা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে অগ্রসর হচ্ছে।

স: ইএইচ/আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট