‘উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে দেশে বর্তমানে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ২৬ লাখ’

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর একে আজাদ চৌধুরী বলেন, উচ্চশিক্ষা ক্ষেত্রে বর্তমানে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বর্তমানে ২৬ লক্ষ। যুক্তরাষ্ট্রে এই সংখ্যা বর্তমানে ৩০ লক্ষ। শুধুমাত্র গুণগত মানের ক্ষেত্রে আমরা পিছিয়ে রয়েছি।
তবে গুণগত মান অর্জনের জন্য আমরা সচেষ্ট রয়েছি মন্তব্য করে তিনি বলেন, গত তিন বছরে গবেষণার মান উন্নয়ন ও উদ্ভাবনী শক্তির বিকাশে হেকেপের এআইএফ ফান্ড হতে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা উপ-প্রকল্পে চারশ কোটি টাকা প্রদান করা হয়েছে।
তিনি বলেন, পাশাপাশি গুণগত মান নিশ্চিতকরণে কোয়ালিটি এসিওরেন্স (কিউএ) ইউনিট গঠন করা হয়েছে এবং এক্ষেত্রে তিনশ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
প্রফেসর আজাদ চৌধুরী আরো বলেন, ইউজিসি’র কিউএ ইউনিটের প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বতন্ত্র কিউএ সেল গঠন করা হবে। এই পুরো প্রক্রিয়ার সাথে আন্তর্জাতিক কিউএ সংস্থাগুলোর যোগসূত্র স্থাপন করা হবে এবং ধারাবাহিকভাবে এক্রিডিটেশন কাউন্সিল গঠনের পরিকল্পনাও বাস্তবায়িত হবে।
তিনি বলেন, এসব উদ্যোগ ও পদক্ষেপ উচ্চশিক্ষার গুণগত মান অর্জনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।
প্রফেসর আজাদ চৌধুরী আজ ইউজিসি’র উচ্চশিক্ষা মানোন্নয়ন প্রকল্প (হেকেপ) এর উদ্যোগে আয়োজিত ‘উচ্চশিক্ষায় মান নিশ্চিতকরণ’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে উচ্চশিক্ষায় মান উন্নয়ন করার লক্ষ্যে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. এম. মুহিবুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্বব্যাংক, বাংলাদেশের সিনিয়র অপারেশন্স অফিসার ড. মো. মোখলেছুর রহমান এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হেকেপের কোয়ালিটি এসিওরেন্স ইউনিটের প্রধান প্রফেসর ড. মেসবাহউদ্দিন আহমেদ। হেকেপের প্রকল্প পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. কোরবান আলী সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মাদ মোহাব্বত খান, প্রফেসর ড. আবুল হাশেম ও ইউজিসি সচিব ড. মোঃ খালেদ। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়েরি ভিসি, প্রো-ভিসি, ডিনসহ সিনিয়র প্রফেসরগণ এবং ইউজিসি ও হেকেপের পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

স: ইএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট