গর্ভনিরোধক কম্পিউটার চিপ আবিষ্কার

ম্যাসাচুসেটস বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী দূরনিয়ন্ত্রিত যন্ত্রের সাহায্যে চালনা করা যায় এমন একটি গর্ভনিরোধক কম্পিউটার চিপ আবিষ্কার করেছেন ।

মঙ্গলবার বিবিসিতে এ সংক্রান্ত এ প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। নতুন আবিষ্কৃত এ চিপটি পরীক্ষামূলকভাবে একজন নারীর ত্বকের নিচে স্থাপন করা হয়েছে। এখন তার শরীর থেকে অল্প পরিমাণে লেভোনরজেস্ট্রেল হরমোন নিঃসরণ হচ্ছে। এভাবে ১৬ বছর ধরে প্রতিদিন তার শরীর থেকে হরমোন নিঃসরণ ঘটবে। তবে দূরনিয়ন্ত্রিত যন্ত্রের সাহয্যে এ নিঃসরণ আবার যেকোনো সময় বন্ধও করা যাবে।

বিশ্বের অন্যতম ধনী বিল গেটসের সহায়তায় প্রকল্পটির কাজ চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে প্রাথমিক পরীক্ষার জন্য আগামী বছর প্রকল্পটি জমা দেয়া হবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০১৮ সালের মধ্যে চিপটি বাণিজ্যিকভাবে বাজারে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। এর দামও গ্রাহকদের সাধ্যের মধ্যে রাখার চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞানীরা জানান, চিপটির ভেতরে এক দশমিক পাঁচ সেন্টিমিটার আয়তনের ক্ষুদ্র আরেকটি যন্ত্র রয়েছে, যেখানে লেভোনরজেস্ট্রেল হরমোন সংরক্ষিত থাকে। এরপর স্বল্পমাত্রায় বৈদ্যুতিক প্রবাহে ওই হরমোনের অতি পাতলা আবরণ গলে যাবে। পরে শরীরে ছড়িয়ে পড়বে ৩০ মাইক্রোগ্রাম হরমোন।

ম্যাসাচুসেটস বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. রবার্ট ফারা বলেন, ‘চিপটি চালু ও বন্ধ রাখার সামর্থ্য থাকায় পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে আগ্রহী ব্যক্তিদের জন্য তা বেশ উপকারে আসবে।’

২০ মি.মি. বাই ২০ মি.মি. বাই ৭ মি.মি. আয়তনের চিপটি প্রতিযোগিতামূলক দামে বাজারে পাওয়া যাবে। বিজ্ঞানীদের পরবর্তী চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, সংশ্লিষ্ট নারীর অনুমতি ছাড়া চিপটি যেন অন্য কেউ চালু বা বন্ধ করতে না পারে, তা নিশ্চিত করা।

 

সঃ সুউ ফয়সাল

 

পছন্দের আরো পোস্ট