চিনের বিখ্যাত সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়

金融楼
সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংহাইএর একটি নাম-করা বিশ্ববিদ্যালয়। এ বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বের অন্যান্য বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে যোগাযোগ বজায় রাখে। এখন এ বিশ্ববিদ্যালয়ের আকার সম্প্রসারিত হয়েছে। মূল ক্যাম্পাস ছাড়া আরও দু’টো নতুন ক্যাম্পাস আছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ৭৮টি বিষয় । এর মধ্যে দর্শন, অথর্নীতি, আইন, শিক্ষা, ইতিহাস, বিজ্ঞান, প্রকৌশল ইনজেনিয়ারিং , ব্যবস্থাপনা সহ মোট দশটি বিভাগ । গত ৫০ বছরেরও বেশী সময় ধরে , এই বিশ্ববিদ্যালয় ১ লাখ ২০ হাজার নানা ধরনের দক্ষ ব্যক্তিকে তৈরী করেছে। সারা সাংহাইএর মাধ্যমিক ও প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষকের মধ্যে ৭০ শতাংশ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক।
১৯৫৪ সালে সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। তখন তার নাম ছিল সাংহাই শিক্ষক প্রশিক্ষণ পেশাদার বিদ্যালয়। ১৯৫৬ সালে এই বিদ্যালয় বিভক্ত হয়ে সাংহাইএর প্রথম ও দ্বিতীয় নর্মাল কলেজে পরিণত হয়। ১৯৫৮ সালে এ দু’টো কলেজ সংযুক্ত হয়ে সাংহাই নর্মাল ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৪ সালে ইনস্টিটিউটের নাম পরিবর্তিত হয়ে সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়হয়। বতর্মানে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে দু’টো শাখা ইনস্টিটিউট ও ৮৫টি গবেষণা সংস্থা আছে।

teacheer training

গত কয়েক দশক ধরে সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরাট পরিবর্তন হয়েছে। প্রথমে নর্মাল স্কুল থেকে নর্মাল কলেজ , তার পর নর্মাল কলেজ থেকে নর্মাল ইনস্টিটিউট পরিবর্তিত হয়, সবশেষে নর্মাল ইনস্টিটিউট থেকে নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় । চীনের শিক্ষা ক্ষেত্রে গভীরে বিকশিত হওয়ার পাশাপাশি, সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়ও নিজের নতুন লক্ষ্যবস্তু নির্ধারণ করেছে। উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আন্তর্জাতিকীকরণ একবিংশ শতাব্দীতে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উন্নয়নের কয়েকটি প্রধান প্রবণতার অন্যতম। বিশ্ব ছাড়া, চীনের উন্নতি প্রায় অসম্ভব, আবার বিশ্ব ছাড়া চীনের উচ্চ শিক্ষার উন্নতিও বলতে গেলে অসম্ভব । য

দি শিক্ষার মান আরও উন্নত করতে হয় তাহলে বিশ্বের উন্নয়নকেঅনুসরণ করতে হবে। রাজনীতি ও অথর্নীতিতে বড় দেশে পরিণত হওয়ার পর চিন শিক্ষা ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে বড় দেশে পরিণত হতে চলেছে আন্তর্জাতিক শিক্ষাদীক্ষা কে অনুসরন করে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় ব্যাপকভাবে সংস্কার ও পুনরুদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। চীনা ভাষা শিক্ষাদান এই বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল লক্ষ্য। গত কয়েক বছর ধরে চীনের অথর্নীতির দ্রুত উন্নতি হয়েছে এবং দেশের সার্বিক শক্তি বেড়েছে। এই প্রেক্ষাপটে সারা বিশ্বে চীনা ভাষা জানার চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। বালাবাহুল্য , সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে এটা একটি বড় সুযোগ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বের ২৫টি দেশ ও অঞ্চলের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গবেষণা সংস্থাগুলোর সঙ্গে সহযোগিতামূলক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করেছে। তা ছাড়া, এই বিশ্ববিদ্যালয় যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, জার্মানি ও ফ্রান্সের সঙ্গে সহযোগিতামূলক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীনে পড়াশুনা করতে আসা বিদেশী শিক্ষার্থীদের সংখ্যা অধিক থেকে অধিকতর হারে পড়েছে।

বতর্মানে বিশ্বের ৩০টিরও বেশী দেশ ও অঞ্চলের প্রায এক হাজার বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী সাংহাই রর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছেন। সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় কেন এত বেশী বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীকে আকর্ষণ করেছে, এর কারণ কী ? এই প্রশ্নের উত্তরে জানা যায়,এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চীনা ভাষা ও সংস্কৃতির বিষয়টি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বৈশিষ্ট্য। তা ছাড়া, পযর্টন বিষয় ও দেশজুড়ে বিখ্যাত। এখানে বিশেষভাবে উল্লেখ করতে হয় যে, শিক্ষক প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় বিশেষ ভূমিকা পালন করছে।নিয়মিত বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী ছাড়া, প্রতি বছর বিদেশী শিক্ষাথীর্দের জন্যে এখানে কয়েক বার স্বল্পমেয়াদের প্রশিক্ষণকোর্স আয়োজন করা হয়।

雕塑、凉棚1

ভাল বিষয় বিদেশী শিক্ষাথীর্দের যেমন আকৃস্ট করছে এর পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান , এর চারপাশের পরিবেশও একটি গুরুত্বপূর্ণ কারন। তা ছাড়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোও বিদেশী শিক্ষার্থীদের আকর্ষণ করার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংহাই মহা নগরের কেন্দ্রে অবস্থিত। চারপাশের দৃশ্য খুব সুন্দর। বেশ কয়েকটি বড় বড় বিপণী আছে বলে কেনাকাটাও অত্যন্ত সুবিধাজনক।

যারা সাংহাই নর্মাল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতে আগ্রহী তারা সহজেই ইন্টারনেটে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে জানতে পারেন। ইন্টারনেটে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়। ইন্টারনেটেও ফর্মপূরন করে ভর্তি ও হওয়া যায়।

পছন্দের আরো পোস্ট