বরিশাল বিভাগের ৩০ স্কুলের পাঠদান অনুমতি স্থায়ীভবে বাতিল

বরিশাল বিভাগের ৫জেলায় ৩০টি স্কুলের পাঠদান অনুমতি স্থায়ীভবে বাতিল করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর।শিক্ষার্থী সংকটের কারনে ওই স্কুলগুলো বন্ধ হয়ে কয়েক বছর আগেই অস্তিত্ব বিলীন হয়ে যায়।

images (2)সংশ্লিষ্ট স্কুলগুলো থেকে বাৎসরিক প্রতিবেদন প্রেরন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের বরিশাল কার্যালয় কর্মকর্তারা সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে স্কুলগুলোর অস্তিত্ব খুঁজে পাননি।

সম্প্রতি এরকম ৩০টি স্কুল চিহ্নিত করে ওই প্রতিষ্ঠানগুলোর পাঠদান অনুমতি বাতিল করে প্রতিষ্ঠানগুলো আনুষ্ঠানিক বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়ে।

৩০টি স্কুলের মধ্যে ২৪টি স্কুলই ভোলা জেলার।

বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের উপ-পরিচালক ড. মোস্তাফিজুর রহমান এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান, এমপিওভূক্ত হওয়ার আশায় ওই বিদ্যালয়গুলো স্থানীয়ভাবে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছিল।

পরবর্তীতে এমপিওভূক্ত হতে না পেরে এবং শিক্ষার্থী সংকটের কারনে শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দিতে না পারায় প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যায়।

যে ৩০টি প্রতিষ্ঠানের পাঠদান অনুমতি বাতিল করা হয়েছে সেগুলো গত ৩বছর ধরে বাৎসরিক প্রতিবেদন দেয়নি।

এমনকি সরেজমিনে গিয়ে এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কিংবা পরিচালনা পর্ষদের কাউকে খুজে পাওয়া যায়নি।

পাঠদান অনুমতি বাতিল হওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার গোলদারহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হালিমাবাদ জেলাার মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাজারীগঞ্জ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাওলাদার হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, জাহানপুর শেরেবাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কেরামতগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কবি নজরুল জে নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুকরী-মুকরী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নিলমহল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দক্ষিণ আওয়াজপুর নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সুলমিরা বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম আহমেদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, জনতা বাজার বালিকা বিদ্যালয়, কুকড়ি-মুকরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রসুলপুর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গফুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মাঝিরহাট মাধ্যমিক বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, তজুমউদ্দিন উপজেলার একাডেমিক নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আড়ালিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, লালমোহন উপজেলার গজারিয়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সিকদারহাট মডেল নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যলয়, বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগধা এসডিএসডিপি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলার উত্তর চালিতাবুনিয়া আরবী বালিকা বিদ্যালয়, গাবতলী বিএম মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গুটাবাছা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠী উপজেলার পিএসডি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার আশুরিয়া হাট নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

স: ইএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট