নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের খুলনা ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা

বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এক শিক্ষককে গ্রেফতারের পর বেসরকারি নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের খুলনা ক্যাম্পাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।Nourthern-University

 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার আগে ক্যাম্পাস বন্ধ এবং ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দেয়া হয়।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মাহবুবুর রহমান জানান, খুলনা ক্যাম্পাসের আইন বিভাগের শিক্ষক রাজীব হাসানাত শাকিলকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় নর্দার্ন ইউনিভার্সিটির সুনাম দারুণভাবে ক্ষুণ্ন হয়েছে।

 

“আইন বিভাগের শিক্ষককে আটক করায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দারুণভাবে মর্মাহত।

পাশাপাশি যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে খুলনা ক্যাম্পাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ক্যাম্পাস আবারও চালু করা হবে।”

 

বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতিকে কটূক্তির অভিযোগে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের খুলনা ক্যাম্পাসের আইন বিভাগের শিক্ষক শাকিলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

 

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে সোনাডাঙ্গা থানার ওসি মো. মারুফ আহম্মদ জানিয়েছেন।

 

এর আগে সকালে সোনাডাঙ্গা থানার এসআই আহম্মেদ আনোয়ার বাদী হয়ে শাকিলকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

 

মামলায় বলা হয়, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ক্লাস চলাকালে শাকিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘ফেরাউন’, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘নাস্তিক’ এবং রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে ‘বটতলার উকিল’ বলেন।

 

এ ঘটনায় বুধবার বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি আইনজীবী আবদুল মালেক ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আতিকুর রহমানের আদালতে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

এতে ওই শিক্ষক এবং ক্যাম্পাস ইনচার্জ আনোয়ারুল করিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।

 

বিচারক অভিযোগটি মামলা আকারে না নিয়ে তা তদন্ত করে ১৬ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে ঢাকার কোতয়ালি থানাকে নির্দেশ দেন।

 

স: ইএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট